নিজের মৃ’ত্যুর দৃশ্য লাইভ করতে চান তিনি

স্বেচ্ছামৃ’ত্যুর অনুমতি না দেয়ায় ফ্রান্সে দুরারোগ্য রোগে আ’ক্রান্ত এক ব্যক্তি শনিবার রাত থেকে তার মৃ’ত্যুর দৃশ্য ফেসবুকে লাইভ করার ঘোষণা দিয়েছিলেন। তবে সেই পরিকল্পনা ভেস্তে দিয়েছে ফেসবুক কর্তৃপক্ষ।

অ্যালা কক নামের ওই ফরাসি জটিল এক শারীরিক সমস্যায় ভুগছেন। যার কোনো চিকিৎসা নেই। তাই যন্ত্র’ণা থেকে মুক্তি পেতে শান্তিতে মা’রা যেতে চান তিনি। এ জন্য ফ্রান্সের প্রেসিডেন্ট ই’মানুয়েল মাক্রোঁর কাছে অনুমতি চেয়ে আবেদন জানান কক। কিন্তু পাল্টা চিঠিতে মাক্রোঁ জানান, ফরাসী আইন অনুযায়ী কাউকে এ অনুমতি দেয়ার সুযোগ নেই।

এ চিঠি পাওয়ার পর শুক্রবার রাত থেকে খাদ্য, পানীয় ও ওষুধ সেবন বন্ধ রাখার ঘোষণা দিয়েছেন ৫৭ বছর বয়সি কক। তার ধারণা, এতে এক সপ্তাহেরও কম সময় বাঁচবেন তিনি। আর শনিবার থেকে নিজের সেই মৃ’ত্যুর দৃশ্য ‘ফেসবুকে লাইভস্ট্রিম’ করবেন। এর মাধ্যমে শুধু নিজের নয়, তার মতো পরিস্থিতিতে থাকা সবারই স্বেচ্ছামৃ’ত্যুর ইচ্ছাপূরণ কেন জরুরি সেটিও তুলে ধরতে চান তিনি। তিনি যে ক’ষ্টের মধ্য দিয়ে যাচ্ছেন তা সবাই যাতে উপলব্ধি করতে পারেন এবং ভবিষ্যতে এ আইন পরিবর্তন হয় এটিই তার উদ্দেশ্য।

পরিকল্পনা অনুযায়ী কক ফেসবুকে লাইভ শুরুও করেছিলেন। কিন্তু কিছুক্ষণ পরই তাকে ব্লক করে দেয়া হয়।
এর আগে শনিবারই বার্তা সংস্থা এএফপিকে ফেসবুকের এক মুখপাত্র জানান, জটিল এ বিষয়ে দৃষ্টি আকর্ষণের জন্য অ্যালা কক যে সিদ্ধান্ত নিয়েছেন সেটির প্রতি তাদের শ্রদ্ধা আছে। কিন্তু অ্যাকাউন্ট থেকে যাতে লাইভ ব্রডকাস্ট না করা যায় বিশেষজ্ঞদের পরাম’র্শে এমন ব্যবস্থা নেয়া হয়েছে।

এদিকে ফ্রান্সের প্রেসিডেন্টের অফিসের এক কর্মক’র্তা জানিয়েছেন, এ ধরনের পরিস্থিতিতে যারা রয়েছেন, তাদের (স্বেচ্ছামৃ’ত্যুর) অধিকারের জন্য ককের প্রতিশ্রুতির প্রতি শ্রদ্ধাশীল মাক্রোঁ।

x