একজন বাদে শহরের সব চিকিৎসক ‘পা’লি’য়ে’ছে

মধ্যপ্রাচ্যের দেশ ইয়েমেনে যখন প্রথম করো’নাভাই’রাস শনাক্ত হয়, তখন দেশটির আদেন শহরের একজন চিকিৎসক বাদে অন্যরা ‘পা’লি’য়ে যান। মূলত করো’নাভাই’রাসের ভ’য় ও পিপিই সংকটের কারণে তারা ‘পা’লি’য়ে যান। খবর বিবিসি।

কেবল ডা. জোহা ওই শহরে থেকেছেন করো’না রোগীদের চিকিৎসা দেওয়ার জন্য। মহামা’রির এই ছয় মাস ইয়েমেনের মানুষ কিভাবে পার করছে, তা জানার জন্য বিবিসির সংবাদদাতা আদেন শহরে যান। শহরটিতে যাওয়ার পর বিষয়টি জানতে পারেন তিনি।

জানা গেছে, গত ছয় মাসে জটিল-কঠিন রোগে আ’ক্রান্ত বহু রোগীকে গুরুতর অবস্থায় চিকিৎসা দিয়েছেন ডা. জোহা। তার চিকিৎসায় সেরে উঠেছে বহু রোগী।

উল্লেখ্য, মধ্যপ্রাচ্যের দেশ ইয়েমেনে মাত্র দুই হাজার ১১ জন করো’না আ’ক্রান্ত হিসেবে শনাক্ত হয়েছে। এর মধ্যে সুস্থ হয়ে উঠেছেন এক হাজার ২১২ জন। বর্তমানে আ’ক্রান্ত অবস্থায় আছেন ২১৬ জন। মোট পাঁচশ ৮৩ জন করো’না আ’ক্রান্ত হয়ে মা’রা গেছে দেশটিতে।

সারা’বিশ্বে এ পর্যন্ত করো’নাভাই’রাসে আ’ক্রান্ত হিসেবে শনাক্ত হয়েছে দুই কোটি ৯১ লাখ ৮০ হাজার ৯০৫ জন। আর প্রা’ণহানি ঘটেছে নয় লাখ ২৮ হাজার ২৬৫ জনের।

x