সিদ্ধান্তের অপেক্ষায় বিসিবি

কিছু ‘অদ্ভুত’ শর্তের কারণে বাংলাদেশ দলের শ্রীলংকা সফর অনিশ্চয়তার কালো মেঘে ঢাকা পড়েছে। অবশ্য একটু একটু করে সে মেঘ সরে যাচ্ছে। শ্রীলংকা ক্রিকেট বোর্ডের (এসএলসি) প্রচেষ্টায় এ সফর আলোর মুখ দেখতে শুরু করেছে। বিসিবি এখন এসএলসির সিদ্ধান্ত জানার অপেক্ষায় আছে। বিসিবি পরিচালক এবং সংস্থাটির মিডিয়া কমিটির চেয়ারম্যান জালাল ইউনুস বলছেন, তারা প্রস্তুত আছেন। এসএলসি থেকে ইতিবাচক উত্তর পেলে তাদের প্রস্তুতি নিতে কোনো অসুবিধা হবে না।

বিশ্ব টেস্ট চ্যাম্পিয়নশিপের তিনটি টেস্ট ম্যাচ খেলতে এ মাসের ২৭ তারিখে কলম্বোর উদ্দোশে উড়াল দেওয়ার কথা রয়েছে বাংলাদেশ জাতীয় ক্রিকেট দলের। তবে কোয়ারেন্টিন ইস্যু নিয়ে সফর হুমকির মুখে পড়েছে। এসএলসি চাইছে ১৪ দিনের কোয়ারেন্টিন; কিন্তু বিসিবি বলছে ৭ দিন। বিসিবি সভাপতি নাজমুল হাসান পাপন তো সাফ জানিয়েই দিয়েছেনÑ শর্ত মেনে শ্রীলংকা সফর সম্ভব নয়। বল তিনি শ্রীলংকার কোটে পাঠিয়ে দিয়েছেন। এখন তাদের সিদ্ধান্তের ওপর নির্ভর করছে বাংলাদেশ দলের শ্রীলংকা সফরে যাওয়া-না যাওয়া। তবে এসএলসি আগ্রহী।

আর সে কারণেই তারা কোয়ারেন্টিন শিথিল করতে দেশটির স্বাস্থ্য মন্ত্রণালয়কে চিঠি পর্যন্ত দিয়েছেন। আজ-কালের মধ্যেই উত্তর পাওয়ার জোড়াল সম্ভাবনা রয়েছে। বাংলাদেশের খেলোয়াড়রা বিসিবির তত্ত্বাবধানে নিয়মিত অনুশীলন করছে। এ ছাড়া কোভিড-১৯ পরীক্ষাও করানো হচ্ছে তাদের। যাদের রিপোর্ট নেগেটিভ আসছে তারাই অনুশীলন করতে পারছেন। শ্রীলংকার উদ্দোশে উড়াল দেওয়ার আগে দেশে কন্ডিশনিং ক্যাম্পের আয়োজনও থাকছে। বিসিবি এখন অপেক্ষায় আছে এসএলসি থেকে উত্তর পাওয়ার।

জালাল ইউনুস বলেছেন, ‘উত্তরটা যেহেতু ওখান (শ্রীলংকা) থেকে আসবে, তাই সফর নিয়ে নির্দিষ্ট করে এখনই কিছু বলা কঠিন। এটা এমন একটা বিষয়, তাদের জাতীয় পর্যায়ের সিদ্ধান্ত। এমন না যে, শুধু শ্রীলংকা ক্রিকেটের সিদ্ধান্ত। তাদের সিদ্ধান্ত জানার জন্য আমাদের অপেক্ষা করতেই হবে।

আশা করছি ২-১ দিনের মধ্যেই তাদের চূড়ান্ত সিদ্ধান্ত আমরা জানতে পারব। বেশি দেরি করলে আবার হয়তো আমরা নতুন করে চিন্তা-ভাবনা করবো।’ কোয়ারেন্টিন ইস্যুতে ঝুলে আছে শ্রীলংকা সফর। তবে এসএলসি আগ্রহী। জানা গেছে, নতুন প্রস্তাব দেওয়া হয়েছে তাদের পক্ষ থেকে। দুই ধাপে ৭ দিন করে বাংলাদেশ দলকে কোয়ারেন্টিনে থাকার প্রস্তাবনা তাদের।

নতুন প্রস্তাব অনুযায়ী ৭ দিন দেশ থেকে কোয়ারেন্টিন শেষ করে বাকি ৭ দিন কলম্বোয় শেষ করতে পারবেন টাইগাররা। এসএলসি যে বাংলাদেশকে আতিথ্য দিতে আগ্রহী, তা পরিষ্কার হয়েছে তাদের আগ্রহ দেখে। শর্ত শিথিল করতে তারা স্বাস্থ্য মন্ত্রণালয়ে আবেদন করেছে। ক্রীড়ামন্ত্রী নামাল রাজাপাকসের সঙ্গে আলোচনা করেছেন এসএলসির সভাপতি শাম্মি সিলভা।

এর পরই স্বাস্থ্য নিরাপত্তাবিষয়ক নির্দেশনা শিথিল করতে স্বাস্থ্য মন্ত্রণালয়ে আনুষ্ঠানিক আবেদন করা হয়। শ্রীলংকার ‘ন্যাশনাল অপারেশন সেন্টার ফর প্রিভেনশন অব কোভিড-১৯ আউটব্রেক’-এর প্রধান লেফটেন্যান্ট জেনারেল শাভেন্দা সিলভার সঙ্গে সেনা সদর দপ্তরে জরুরি বৈঠক করেছে এসএলসির সভাপতি শাম্মি সিলভার নেতৃত্বে একটি প্রতিনিধি দল।

ক্রিকেটবিষয়ক ওয়েবসাইট ক্রিকইনফোকে শ্রীলংকা ক্রিকেটের ভাইস প্রেসিডেন্ট রাভিন বিক্রমারত্নে বলেছেন, ‘কোভিড-১৯ টাস্কফোর্সের সঙ্গে শ্রীলংকা ক্রিকেটের ইতিবাচক বৈঠক হয়েছে। সবাই একমত যে, এই সফরটা হওয়া উচিত। তবে চিকিৎসকদের পরামর্শও বিবেচনায় আনতে হবে আমাদের।’

x