শেখ হাসিনার যে সিদ্ধান্তের জন্য তাকিয়ে সবাই

আওয়ামী লীগ সভাপতি এবং প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা দেশের আশা আকাঙ্ক্ষার প্রতীকে পরিণত হয়েছেন। যে কোন অন্যায় এবং অ’বিচা’র হলেই সবাই তাকিয়ে থাকে তার দিকে। যে কোন সং’কটে মানুষ অপেক্ষা করে শেখ হাসিনার সিদ্ধান্তের জন্য।

দু’র্যো’গে ভরসা যেন শেখ হাসিনাই। রাষ্ট্র এবং দল পরিচালনা করছেন তিনি নিপুণ দক্ষতায়। সাম্প্রতিক সময়ে দেশের জনগণ শেখ হাসিনার কিছু সিদ্ধান্তের দিকে তাকিয়ে। শেখ হাসিনা কিভাবে এই সিদ্ধান্ত নেন, তা দেখার অপেক্ষায় গোটা দেশ। এ রকম কিছু বিষয় হলো:-

১। মন্ত্রীসভার রদবদল:দীর্ঘদিন ধরেই মন্ত্রীসভার রদবদল নিয়ে কথা হচ্ছে। বিশেষ করে করোনা সংকটের পর অনেক মন্ত্রীর কর্মকাণ্ডেই সাধারণ মানুষ হতাশ। ক্ষমতাসীন আওয়ামী লীগের ভেতরও মন্ত্রীসভার রদবদল নিয়ে গুঞ্জন আলাপ-আলোচনা হচ্ছে প্রতিনিয়ত।

সেপ্টেম্বরেই মন্ত্রীসভা রদবদল হতে পারে এমন ধারণা ছিলো অনেকের। কিন্তু শেষ পর্যন্ত সেই ধারণা সত্যি পরিণত হয়নি। অক্টোবরে কি মন্ত্রীসভার রদবদল হবে? এই প্রশ্ন অনেকের।

২। আওয়ামী লীগের কমিটি:দেশের প্রধান রাজনৈতিক দল বাংলাদেশ আওয়ামী লীগ। দলটির সভাপতি বেশ কিছুদিন ধরেই দলটিকে ঢেলে সাজাতে চাইছেন। সে লক্ষ্যে নানা নির্দেশনাও দিচ্ছেন।

আওয়ামী লীগের জেলা কমিটি, কেন্দ্রীয় উপ-কমিটি, অঙ্গ ও সহযোগী সংগঠনের কমিটি গুলো করা প্রয়োজন, এর প্রক্রিয়াও শুরু হয়েছে। সেপ্টেম্বরে এই কমিটি গঠনের কথা ছিলো। কিন্তু শেষ পর্যন্ত হয়নি। অক্টোবরে কি এই কমিটি গুলো হবে? এই প্রশ্ন অনেকের।

৩। জেলায় জেলায় শুদ্ধি অভিযান:প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার নির্দেশে ফরিদপুরে শুদ্ধি অভিযান পরিচালিত হয়। শহর আওয়ামী লীগ এবং এর অঙ্গ ও সহযোগী সংগঠনের প্রভাবশালী নেতাদের আইনের আওতায় আনা হয়।

একই ধারায় কুষ্টিয়াতেও শুদ্ধি অভিযানে আওয়ামী লীগের স্থানীয় নেতৃবৃন্দ আটক হন। এই ধারায় কি সারাদেশে শুদ্ধি অভিযান হবে? এই প্রশ্ন জনগণের। এই শুদ্ধি অভিযান স্থানীয় জনগণকে স্বস্তি দেয়।

৪। দুর্নীতি বিরোধি অভিযানে কি ধরা পরবে রাগব বোয়ালরা:টানা তৃতীয় মেয়াদে দায়িত্ব গ্রহণ করেই শেখ হাসিনা ঘোষণা করেন দুর্নীতির বিরুদ্ধে ‘জিরো টলারেন্স’ নীতি। একের পর এক দুর্নীতিবাজদের ধরা হচ্ছে। বিশেষ করে করোনা কালে স্বাস্থ্য খাতে দুর্নীতি বন্ধে তিনি কঠোর অবস্থানে যান।

কিন্তু এই সব দুর্নীতিবাজদের ধরা হলেও এদের নেপথ্যে গডফাদার’রা প্রভাবশালী বড় কর্তারা এখনও ধরা ছোঁয়ার বাইরে। এরা আইনের আওতায় আসবে কবে? এ প্রশ্ন মানুষের। এ রকম আরো কিছু সিদ্ধান্ত জানার জন্য দেশবাসী তাকিয়ে শেখ হাসিনার দিকে।

x