নি’র্যা’তিত না’রীর আ’র্তনাদ ‘আব্বা গো ছাড়ি দে’, শুনেই তাদের অট্টহাসি

কতটা নৃ’শং’স, কতটা পা’ষ’ণ্ড আর ব’র্বর হলে এভাবে বি’ব’স্ত্র করে একজন না’রীকে নি’র্যা’ত’ন করা যায়? উত্তরটা বোধহয় কারোই জানা নেই। এরা যে পশুর চেয়েও ভ’য়ানক তারই প্রতিফলন এই ব’র্ব’র’তা। ”’

রোববার দুপুরে যখন ভিডিওটি সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে ছড়িয়ে পড়ে। মু’হূর্তেই ভাইরাল। সারা দেশে ছি ছি রব!

ভিডিওতে দেখা যাচ্ছে, এক নারী সম্পূর্ণ বি’ব’স্ত্র অবস্থায় গো’ঙাচ্ছে, কাঁদ’ছে; সেই সঙ্গে বলছে-বাবা গো আমাকে ছেড়ে দে। ‘আ’ব্বা গো তোর আল্লাহ’র দোহাই ছা’ড়ি দে!

আশপাশের ২০-২৫ বছরের ছেলে গুলো হায়েনার মতো হাসছে আর বলছে-উ’ল্টা, উ’ল্টা, উ’ল্টা’! কারণ বি’ব’স্ত্র ওই না’রী নিজেকে বাঁচা’নোর জন্য ওপর হয়ে শুয়ে কাঁ’দছিল আর বলছিল-এরে আব্বা গো, তোগো আল্লাহ’র দোহাইরে।

ঘটনাটি নোয়াখালীর বেগমগঞ্জের। এরিমধ্যে ঘটনার মূল হো’তাদের পরিচয় পাওয়া গেছে। এ দিকে বিষয়টি যাতে জানাজানি না হয় সেজন্য অ’ভিযু’ক্ত দেলোয়ার, বাদল, কালাম ও তাদের সহযোগীরা ভু’ক্তভো’গী গৃ’হ’ধূর পরিবারকে অ’বরু’দ্ধ করে রাখে। এতে ঘটনাটি এতদিন ধা’মাচা’পা থাকে। বর্তমানে ওই পরিবারের ঘরে তা’লাও ঝুলছে।

স্থানীয়রা জানায়, রোববার বিকেলে ঘটনাস্থল পরিদর্শনে এসে অ’ভিযু’ক্ত আব্দুর রহিম নামে এক যু’ব’ককে আ’টক করেছে পু’লিশ। আব্দুর রহিম উপজেলার একলাশপুর ইউপির পূর্ব একলাশপুর গ্রামের বাসি’ন্দা। স্থানীয়দের অ’ভিযো’গ, ওই গৃহবধূকে গ’ণধ”র্ষণ করা হয়েছে।

ভয়ে ভু’ক্তভো’গী গৃহবধূ বিষয়টি কাউকে জানাননি। তাই ঘটনার ৩২ দিন পার হলেও এ ঘটনায় থানায় কোনো অ’ভিযো’গ করতে পারেননি তিনি।

এ ঘটনায় রবিবার (৪ অক্টোবর) আবদুর রহিম (২২) নামে এক যুব’ককে আ’ট’ক করেছে বেগমগঞ্জ থানা পু’লিশ। আর পু’লিশের ৫টি ইউনিট অন্য বখাটেদের ধরতে অ’ভি’যানে নেমেছে।

বেগমগঞ্জ থানা পু’লিশ জানিয়েছে, ভিডিওটি ভাই’রাল হওয়ার পর জেলা পু’লিশ সুপার মোহাম্মদ আলমগীর হোসেনের নজরে আসে। এরপর এ বিষয়ে ত্ব’রিত ব্যবস্থা গ্রহণের জন্য বেগমগঞ্জ মডেল থা’নার ‘ভা’রপ্রাপ্ত কর্মকর্তাকে নির্দেশ দেন তিনি।

থানা সূত্র আরও জানায়, পু’লিশ আজ ভিকটিম ওই না’রীকে তার বাবার বাড়ি থেকে স’ন্ধ্যায় উ’দ্ধা’র করে। তিনি পুলিশকে জানান, ২০/২৫ দিন আগে এ ভিডিওচিত্র ধারণ করা হয়।

বেগমগঞ্জ মডেল থা’নার ভা’র’প্রা’প্ত ক’র্ম’কর্তা হারুন অর রশিদ চৌধুরী বলেন, ঘটনার সঙ্গে জ’ড়িত আবদুর রহিমকে আ’ট’ক করা হয়েছে। অন্যদের গ্রে’ফতা’রে অ’ভিযা’ন অ’ব্যাহ’ত রয়েছে।

x