৮ টি মুভির মি’লন দৃ’শ্যই বা’স্তব অ’ভিনয়

হলিউড-বলিউডের গ’ণ্ডি পেরিয়ে বহু দেশের সিনেমা রয়েছে যেখানে যৌ’নতা আর পাঁচ’টি স্বাভাবিক প্রবৃত্তির মতোই দেখানো হয়েছে।কিন্তু অধিকাংশ অ’ভিনেতা-অ’ভিনেত্রীরা শ্যু’টিংয়ের শেষে জানিয়েছেন, মি’লন দৃশ্যে হয় বডি-ডাবল ব্যবহার করা হয়েছে না হয় ‘স্টি’মুলেটেড’।

যেখানে প’র্নো তারকাদের ব্যবহার করা হয়েছে।তবে এমন ছবিও রয়েছে যার কলাকুশলীরা স্বীকার করেছেন যে, তাঁরা শ্যুটিংয়ের সময় সত্যিই
কো-স্টারের স’ঙ্গে স’ঙ্গ’ম করেছেন।এমনই বিশ্ব কাঁপানো ৮টি ছবির ত’থ্য দেওয়া হল।

• ক্যালিগুলা ;১৯৭০ দশকের ছবি ক্যালিগুলা। অন্যান্য সমস্ত ছবির ক্ষেত্রে পথিকৃতও বলা চলে।নির্মাতারা ছবি মুক্তির আগে জানিয়ে দেন, ছবিতে অ’ভিনেতা-অ’ভিনেত্রীরা সত্যিকারের সে’ক্সু’য়াল অ্যাক্ট পারফর্ম করেছেন।ফুল ফ্রন্টাল ন্যু’ডি’টি থেকে, ও’রাল সে’ক্স, স’ঙ্গ’ম দৃশ্যে কোন বডি
ডাবল ব্যবহার করা হয়নি। যদিও সাধারণ দর্শক এবং ফিল্ম ক্রিটিকরা ছবিটি খুব ভালো ভাবেগ্রহণ করেননি

• অল অ্যাবাউট আনা ;ডেনমা’র্কের ছবি। পরিচালক লার্স ভন ত্রিয়ের ছবিটি সে’ক্সু’য়াল স’ম্পর্ক নিয়ে তৈরি করেন।মা’স্টা’রবে’শন এবং স’মদৃশ্যগু’লিতে অ’ভিনয়ের সময় ছবির চরিত্ররা সত্যিকারের মি’লনকরেন।ছবিটি নিয়ে দেশে যথেষ্ট সমালোচিত হয়।

তাতে প্রযোজক জানান,ছবিটি এমন একটি বি’ষয়ের ও’পর তৈরি যাতে সে’ক্সু’য়া’ল অ্যাক্ট না দেখালে ছবির বি’ষয়বস্তু আ’ঘাত পেত।

• দ্য ব্রাউন বানি’;ছবিতে প্রধান চরিত্রে অ’ভিনয় করেছেন ক্লোয়ি সেভিঙ্গি। মূ’লত তাঁর বিভিন্ন দৃশ্য, বিশেষত ওরাল মি’লনর দৃশ্যগু’লি

সবই সত্যি পারফর্ম করেছেন তিনি• লাই উইথ মি;লরেন লি স্মিথ এবং এরিক ব্যালফোরের স’ঙ্গ’ম দৃশ্য ছবিতে অন্যতম চর্চার বি’ষয় ছিল। আর

হবে নাই বা কেন, ছবিতে সত্যিই পারফর্ম করেছেন দু’জন।

• নি’ম্ফো’ম্যানিয়াক যাঁরা আন্তর্জাতিক সিনেমা স’ম্পর্কে খোঁজ রাখেন তাঁরা নিশ্চয়ই জানবেন, সারা বিশ্বে আলোড়ন ফে’লে দিয়েছিল ছবিটি।

এর পরিচালক ছিলেন লার্স ভন ত্রিয়ের। ছবিতে মি’লন দৃশ্যের জন্য অ’ভিনেতারা সত্যিই পারফর্ম করেন। কিছু দৃশ্যে প’র্নো তারকাদের

ব্যবহার করা হয়েছে।

• সুইট সুইটব্যাকস ব্যাডঅ্যাস সঙ;১৯৭১ সালের ছবির প্রধান অ’ভিনেতা মেলভিন ফান পেবলস প্রথমে সে’ক্স দৃশ্যের কথা অস্বীকার করলেও

বহু বছর বাদে প্রকাশ পায়, ছবির দৃশ্য সব সত্যিই শ্যুটিং করা হয়েছিল। শ্যুটিং পরবর্তীকালে মেলভিন যৌ’ন রো’গে আ’ক্রান্ত হন। কনট্র্যাক্ট

অনুযায়ী তাঁকে কমপেনসেশনও দেওয়া হয়েছিল।

• পিঙ্ক ফ্লেমিঙ্গোস;১০৭২ সালের ছবি। জন ওয়াটার্স ছবিটি পরিচালনা করেন। ছবির বেশ কিছু দৃশ্যে সত্যিকারের মি’লন দেখানো হয়।

• বেইস মোয়া;ফরাসি ছবি। যাঁর বাংলা তর্জমা করলে দাঁড়ায় ‘আমা’র স’ঙ্গে স’ঙ্গ’ম করো। টাইটেল দেখেই আন্দাজ করা যেতে পারে ছবিতে

মি’লনের দৃশ্য থাকবে। ছবির স’ঙ্গ’ম দৃশ্য শুধুমাত্র গ্রাফিকই নয়, রীতিমতো প’র্নোগ্রাফির স’ঙ্গে এ ছবির তুলনা করেছেন ফিল্ম ক্রিটিকরা।

আরো পড়ুন নোয়াখালীর সোনাইমুড়ীতে নবম শ্রেণির এক ছাত্রীকে (১৬) বিয়ের প্র’লোভন দেখিয়ে অ’পহরণ করে ধ’র্ষণ করার অ’ভিযোগ উঠেছে। এ ঘ’টনায় শুক্রবার রাতে এক ইউপি সদস্যকে আ’টক করেছে পু’লিশ। শনিবার (১৬ নভেম্বর) দুপুর ভি’কটিমকে মেডিকেল পরিক্ষার জন্য নোয়াখালী জেনারেল হাসপাতালে প্রে’রণ করা হয়েছে।

পু’লিশ ও মা’মলা সূ’ত্রে জানা যায়, গত ৭ নভেম্বর বিপুলাসার উচ্চ বিদ্যালয়ের ৯ম শ্রেণির ওই ছাত্রীকে বিয়ের প্র’লোভন দেখিয়ে স্থানীয় ইউপি মেম্বার মোশারফ (৩৮) সিএনজিযোগে অ’পহরণ করে নিয়ে যায়। পরে তাকে খাগড়াছড়ি জে’লার মাটিরাঙ্গা থানা এলাকায় আ’সামির খালার বাড়িতে নিয়ে

তিনদিন ধরে তার ই’চ্ছার বি’রুদ্ধে ধ’র্ষণ করে। পরে বৃহস্পতিবার সন্ধ্যায় মোশারফ মেম্বর চাষিরহাট নতুন বাজার এলে ওই ছাত্রীর ভাই ও এলাকার লোকজন উত্তম মধ্যম দিয়ে তাকে আ’টক করে রাখে। খবর পেয়ে থানা পু’লিশ এসে এলাকাবাসীর কাছ থেকে অ’পহরণকারী মোশারফ মেম্বরকে

উ’দ্ধার করে থা’নায় নিয়ে যায়।সোনাইমুড়ী থানার ওসি আব্দুস সামাদ পিপিএম জানান, এ ঘ’টনায় সোনাইমুড়ী থানায় মা’মলা হয়েছে। ভি’কটিমের স্বা’স্থ্য পরীক্ষার

জন্য নোয়াখালী জেনারেল হাসপাতালে পরীক্ষা শেষে জ’বানব’ন্দি নেয়া হয়।পরে আ’সা’মিকে আ’দালতের মাধ্যমে শনিবার জে’লহাজতে প্রে’রণ করা হয়েছে।

x