ডায়াবেটিস নিয়ন্ত্রণে নিম চা

আন্তর্জাতিক ডায়াবেটিস ফেডারেশনের অনুসারে, গোটা বিশ্বে ৪৬ কোটি মানুষ ডায়াবেটিসে আক্রান্ত। ধারণা করা হচ্ছে,২০৪৫ সালের মধ্যে এই সংখ্যা আরও ১৫ কোটি বাড়বে।

ডায়াবেটিস এমন একটি দীর্ঘস্থায়ী রোগ যা রক্তে শর্করার মাত্রা বাড়িয়ে দেয়। এটা নিয়ন্ত্রণে না রাখলে নানা ধরনের শারীরিক জটিলতা যেমন-হৃদরোগ, কিডনি সমস্যা দেখা দিতে পারে।

বিশেষজ্ঞদের মতে, সঠিক, খাদ্যাভাস ও জীবনযাত্রা পদ্ধতি পরিবর্তনের মাধ্যমে ডায়াবেটিস নিয়ন্ত্রণে রাখা সম্ভব। তারা বলছেন, প্রতিদিনের খাদ্যতালিকায় অবশ্যই ফাইবার, কার্বোহাইড্রেট ও প্রোটিনযুক্ত খাবার থাকা উচিত। এছাড়াও চিনিযুক্ত, ট্রান্স ফ্যাট এবং উচ্চ ক্যালরিসম্পন্ন খাবার এড়ানো প্রয়োজন।

ডায়াবেটিস নিয়ন্ত্রণে বেশ কিছু ভেষজ উপাদান ও মসলা গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা রাখে। নিম পাতা ডায়াবেটিস নিয়ন্ত্রণে বেশ কার্যকরী। ‘স্টাডিজ অন এথনো মেডিসিন’ শীর্ষক জার্নাল অনুসারে, নিম পাতার গুঁড়া রক্তে শর্করার পরিমাণ নিয়ন্ত্রণে কার্যকরী ভূমিকা রাখে। এ কারণে যাদের ডায়াবেটিস আছে তারা নিয়মিত নিম পাতা বা নিমের গুঁড়া দিয়ে তৈরি চা খেতে পারেন।

নিমের চা তৈরির জন্য বাজার থেকে নিমপাতা গুঁড়া কিনতে পারেন কিংবা বাড়িতেই এ পাতা শুকিয়ে রাখতে পারেন। নিম পাতার চা তৈরির সময় এতে দারুচিনির গুঁড়াও যোগ করতে পারেন। এটিও ডায়াবেটিস নিয়ন্ত্রণে ভূমিকা রাখে।

ডায়াবেটিস কেয়ার জার্নাল অনুযায়ী,দারুচিনির গুঁড়া টাইপ টু ডায়াবেটিস নিয়ন্ত্রণে বেশ কার্যকর। এছাড়াও এটি ডায়াবেটিস ও হৃদরোগজনিত জটিলতার ঝুঁকি কমায়। এসব ছাড়াও দারুচিনি ও নিম মিশ্রিত চা রোগ প্রতিরোধ ক্ষমতা বাড়ায়। সেই সঙ্গে ত্বকে ভালো রাখে এবং ওজন কমায়।

x