অবশেষে সব ছাপিয়ে- আবরারকে নৃ’শংসভাবে হ’ত্যার লো’মহ’র্ষক বর্ণনা দিলেন খুনি’ অনীক

বুয়েটের তড়িৎ ও ইলেকট্রনিক প্রকৌশল বিভাগের দ্বিতীয় বর্ষের শি’ক্ষার্থী আবরার ফাহা’দের হ’ত্যা’র ঘটনায় গ্রে’ফ’তার হওয়া মা’ম’লার তিন নম্বর অনীক সরকার স্বী’কা’রো’ক্তি’মূলক জবানব’ন্দিতে দিয়েছেন।

জবানব’ন্দিতে তিনি ‘সিনিয়’রদের নির্দে’শনা মেনে কাজ করার’ কথা জানি’য়েছেন।

আ’দা’লত সূত্রে দ্য বিজনেস স্ট্যান্ডা’র্ড জানায়, শনিবার (১২ অক্টোবর) বুয়েট ছা’ত্রলী’গের ব’হিষ্কৃ’ত তথ্য ও গ’বেষণা সম্পা’দক অনী’ক স্বী’কারো’ক্তি’মূলক জবানব’ন্দি দেন।

এ সময় আবরা’র হ’ত্যা’কা’ণ্ডে সে জ’ড়িত বলে জা’নায়। সেই সঙ্গে আব’রার’কে হ’ত্যা’ করার উ’দ্দেশ্য তা’দের ছিল না সে কথাও জানা’ন অ’নীক।

অনী’ক জানান ‘বুয়েট এটা নতুন কিছু নয়, সিনিয়র ছা’ত্রলী’গ নে’তারা শি’বি’র-সংশ্লি’ষ্টতার অ’ভিযো’গে তা’দের প্রায়ই এ ধর’নের কাজ করতে নি’র্দেশ’না দেন।

’অনী’ক বলেন, ‘আব’রারে’র মৃ’ত্যু’র জন্য সবা’ই আ’মাকে দোষ দিচ্ছে। কিন্তু আমি তো শুধু সিনি’য়’রদের নি’র্দেশ’না মতো কাজ করছি’লাম।

সি’নিয়র’রা আ’মাকে ভ’য়’ও দে”খা’চ্ছিল, ব্য’র্থ হলে আ’মা’কে এর ফল বহন কর’তে হবে। বুয়েটে ছা’ত্রলী’গ এভা’বে’ই কাজ করে।

’আব’ররা’রকে এক ঘণ্টা ধরে ক্রি’কে’টের স্ট্যাম্প দি’য়ে নি’র্দ’য়ভাবে পে’টা’নোর কথাও স্বী’কা’র ক’রেছেন তিনি। অ’নী’ক জানান, ‘আব’রার’কে ওভা’বে মে’রে আমি আমা’র রুম ৫০৭ নম্ব’রে যাই। সেখা’নে আবা’র একটু ম’দ খেয়ে শুয়ে থাকি যেন কিছু’ই হয়নি।

এদি’কে আব’রার’কে নৃ’শংস’ভা’বে হ’ত্যা’র দায় বুয়ে’ট ছা’ত্রী’গের বহি’ষ্কৃ’ত সাধা’রণ সম্পাদক মেহে’দি হাসান রা’সেল ও সাংগঠনিক সম্পা’দক মেহে’দি হাসা’নের ওপর দিয়ে’ছেন অনীক।

তিনি ব’লেন, ‘আমি তো এমন ছি’লাম না। নটর ডেম থে’কে যখন বু’য়েটে পড়’তে আসি তখন খুব হা’সিখু’শি ছিলাম। জানি না কী’ভা’বে এমন হয়ে গেলাম।’আ’দালতে অ’নীক সে রাতের ঘটনার পুরো বিবর’ণ দি’য়েছেন বলে জা’না গেছে।

এর আগে, শু’ক্র’বার স’ন্ধ্যা’য় মেফ’তাহুল ইস’লাম জিয়ন আ’দা’লতে স্বী’কারো’ক্তিমূ’লক জবানব’ন্দি দেন।তিনি বলেন, ‘সিনি’য়র জুনিয়র যে-ই হোক, আম’রা তাদের এভাবে পে’টাতাম।

আবরার মা’রা গেছে দুর্ঘ”টনা’ক্রমে। আমা’দের মতের সঙ্গে না মিল’লে কা’উকে পি’টি’য়ে বের করে দিতে পা’রলে ছাত্র’লী’গের হাই ক’মান্ড আমা’দের প্রশংসা করত। সিস্টে’মটাই আ’মাদের এমন নিষ্ঠুর বানিয়েছে।’

ঢাকা ম’হা’নগর পু’লিশে’র গো’য়ে’ন্দা শাখার যুগ্ম কমিশনার মাহবুব আ’লম জানান, আ’সা’মি’দের মধ্যে তিন জন এরই মধ্যে স্বী’কা’রো’ক্তি’মূল’ক জবা’নব’ন্দি দিয়ে’ছেন।

আরও কয়ে’ক জন দে’বেন। তিনি জানান ‘ত’দ’ন্ত চল’ছে। তবে ত’দন্ত শেষ হলে মিডি’য়ায় ব্রিফিং ক’রা হবে।

x