ওয়াইড বলেও রিভিউ চান কোহলি

মঙ্গলবার রাতে সানরাইজার্স হায়দরাবাদ ও চেন্নাই সুপার কিংসের মধ্যকার ম্যাচটিতে অবাক কাণ্ড ঘটেছে আম্পায়ারিংয়ের।

ম্যাচে হায়দরাবাদের ইনিংসে ১৯তম ওভারে অফস্টাম্পের অনেক বাইরের একটি ডেলিভারিতে ওয়াইডের সংকেত দেয়ার জন্য হাত প্রসারিত করেছিলেন আম্পায়ার ক্রিস গ্যাফানি।

তখনই উইকেটের পেছন থেকে ধ্মক দিয়ে ওঠেন চেন্নাই অধিনায়ক মহেন্দ্র সিং ধোনি। সঙ্গে সঙ্গে অর্ধ প্রসারিত হাত দুইটি আবার আগের জায়গায় রেখে দেন আম্পায়ার। ম্যাচের গুরুত্বপূর্ণ একটা সময়ে ধোনির এমন আচরণ ও আম্পায়ারের সিদ্ধান্ত বদলে ফেলার ঘটনাটি আইপিএলের আলোচিত বস্তুতে পরিণত হয়েছে ম্যাচের পর থেকেই।

এ আলোচনায় যেনো নতুন মশলা যোগ করলেন রয়েল চ্যালেঞ্জার্স ব্যাঙ্গালুরু ও ভারতীয় ক্রিকেট দলের অধিনায়ক বিরাট কোহলি। বর্তমান সময়ে বিশ্বের অন্যতম সেরা এ ব্যাটসম্যান জানিয়েছেন, লেগ বিফোর উইকেট এবং ক্যাচ আউটের মতো ওয়াইড বল এবং হাই ফুল টসের ক্ষেত্রেও রিভিউ সিস্টেম থাকা উচিত।

ভারতীয় দলের সতীর্থ এবং বর্তমানে কিংস এলেভেন পাঞ্জাবের অধিনায়ক লোকেশ রাহুলের সঙ্গে ইন্সটাগ্রাম আড্ডায় এ কথা বলেছেন কোহলি। পুমা ইন্ডিয়ার হ্যান্ডলারে করা লাইভে কোহলি বলেন, ‘আমি একজন অধিনায়ক হিসেবে কথা বলব। আমার মতে, ওয়াইড বল কিংবা হাই ফুল টসের ক্ষেত্রে রিভিউ থাকা উচিত। কেননা এসব সিদ্ধান্তও ভুল হতেই পারে।’

এমন চাওয়ার পেছনে নিজের যুক্তি বিস্তারিত বুঝিয়ে কোহলি আরও বলেন, ‘আগেও আমরা দেখেছি যে আইপিএলের মতো বড় টুর্নামেন্ট কিংবা যেকোনো টি-টোয়েন্টি ক্রিকেটে একটা ওয়াইড বা হাই ফুল টস ডেলিভারি কত বড় পার্থক্য গড়ে দিতে পারে। খেলার গতি খুব দ্রুত বদলায় এবং ছোট ছোট বিষয় অনেক বড় প্রভাব ফেলে।’

‘আপনি যখন কোনো ম্যাচ ১ রানে হারেন এবং কোনো ওয়াইড বলে রিভিউ করতে না পারেন; তখন এটা কিন্তু যেকোনো দলের পুরো টুর্নামেন্টের যাত্রায়ই একটা ধাক্কা দিতে পারে।’

কোহলির সঙ্গে একাত্মতা প্রকাশ করে রাহুল বলেন, ‘এমন নিয়ম আসলে সত্যিই অনেক ভালো হবে। প্রতি দলকে দুইটি করে রিভিউ দিয়ে বলা যেতে পারে যে যেকোনো সময় এগুলো ব্যবহার করা যাবে।’

এসময় রাহুল নিজেও একটি নতুন নিয়ম সংযোজনের পরামর্শ দেন, ‘কেউ যদি ১০০ মিটারের চেয়ে বড় ছক্কা হাঁকায়, তাহলে ছয়ের চেয়ে বেশি রান দেয়া উচিত। আমি আমার বোলারদের এ বিষয়ে বলব।’

x