জিনে এনে বাড়িতে দিয়ে গেছে, নিখোঁজের ১২ দিন পর ফিরে এলেন প্রবাসীর স্ত্রী

নোয়াখালীর হাতিয়া থেকে চিকিৎসার জন্য চট্রগ্রাম যাওয়ার পথে মাইজদীর সোনাপুর বাসস্ট্যান্ড থেকে সৌদি প্রবাসীর স্ত্রী’’ নাসরিন আক্তার (২২) নিখোঁজের ১২ দিন পর ফিরে এলেন নিজ বাড়িতে। ওই গৃহবধূ বলছে, তাকে জিনে এনে

বাড়িতে দিয়ে গেছে। বর্তমানে ওই গৃহবধূ হাতিয়া উপজে’লা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে চিকিৎসাধীন রয়েছে।তবে নিখোঁজের ১২ দিন পর নিজে নিজে ওই সৌদি প্রবাসীর স্ত্রী’’র বাড়ি ফিরে আসা নিয়ে এলাকায় গোলকধাঁধা সৃষ্টি হয়েছে। প্রবাসীর স্ত্রী’’

হাতিয়া উপজে’লার বুড়িরচর ইউনিয়নের আজিজিয়া গ্রামের আবদুর রহমান’র মে’য়ে।সুধা’রাম থা’না পুলিশ বলছে, নিখোঁজের ঘটনায় গৃহবধূর পরিবাবর গত (১৩ অক্টোবর) সুধা’রাম থা’নায় একটি অ’পহ’রণ মা’মলা করেছিল।

সুধা’রাম মডেল থা’নার পরিদর্শক (ত’দন্ত) টমাস বড়ুয়া বলেন, ঘটনার সত্যতা নিশ্চিত করে বলেন, এ ঘটনায় ভিকটিমের পিতা ওই সময় বাদী হয়ে একটি অ’পহ’রণ মা’মলা করে ছিল। কিন্তু গতকাল রোববার ওই গৃহবধূ নিজে নিজে বাড়িতে ফিরে আসার খবর পাওয়া গেছে।

পরবর্তীতে খতিয়ে দেখে পুলিশ ত’দন্ত সা’পেক্ষে ব্যবস্থা গ্রহণ করবে। উল্লেখ্য, কিছুদিন ধরে অ’সুস্থবোধ করায় নাসরিনকে চিকিৎসা করানোর জন্য গত (৮ অক্টোবর) সকাল ৮টায় হাতিয়া থেকে চট্টগ্রামের উদ্দেশে যাওয়ার পথে দুপুর ১টার দিকে

মাইজদীর সোনপুর জিরো পয়েন্ট এলাকায় পৌঁছানোর পর নাসরিনের অ’সুস্থ হয়ে পড়লে মে’য়েকে একুশে বাস কাউন্টারে রেখে ওষুধ আনতে যায় তার বাবা। পরে ৫-১০ মিনিট পর তিনি কাউন্টারে এসে দেখেন নাসরিন নেই।